বৃহস্পতিবার, জুন ১৭, ২০২১
Home village করোনাকালে তীব্র সঙ্কটে পড়েছেন সুন্দরবনের কৃষকরা

করোনাকালে তীব্র সঙ্কটে পড়েছেন সুন্দরবনের কৃষকরা

২১১ Views

কোভিড-১৯ এর জেরে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী ও কৃষকরা। বিশেষত সুন্দরবনের মতো প্রত্যন্ত এলাকায় যারা বাস করেন, তারা বেশ বিপাকে পড়েছেন। কৃষিকাজ আর লাভজনক না হওয়ায় দীর্ঘদিন ধরেই কৃষি ছেড়ে ভিনরাজ্যে শ্রমিকের কাজ শুরু করেছেন সুন্দরবনের কৃষকরা। তবে গত মার্চ মাস থেকে পরিস্থিতি বদলাতে শুরু করে।

প্রথমত, মহারাষ্ট্র, কেরলের মতো রাজ্যগুলিতে কাজ করতে যাওয়া সুন্দরবনের অনেক শ্রমিক আটকে পড়েন। লকডাউন জারি হওয়ায় তাদের অনেকেই বাড়ি ফিরতে পারেননি। বহু কষ্টে বাড়ি ফেরার পরও তাদের শান্ত নেই। ভিনরাজ্যে কাজ করে যে দু পয়সা রোজগারের সুযোগ ছিল, আপাতত সেটাও নেই। একেই কোভিডের ফলে বাইরে বেরোনো ঝুঁকিসাপেক্ষ ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে। তার উপর অনেকের কাজ চলে গিয়েছে। ফলে ভিনরাজ্যেও আর সহজে কাজ পাওয়া যাচ্ছে না। নতুন করে অনেকে তাই নিজেদের গ্রামের বাড়িতে থেকেই অর্থ রোজগারের চেষ্টা করছেন। কাজটা কঠিন। তবুও তারা লড়াইয়ে হাল ছাড়ছেন না।

কোভিডের কারণে দীর্ঘদিন লোকাল ট্রেন বন্ধ থাকায় সুন্দরবনের কৃষকরা তাদের পণ্য নিয়ে কলকাতায় আসতে পারেননি। ফলে তাদের কৃষিজ উৎপাদন মার খেয়েছে। সর্বত্র হিমঘরের সুবিধা না থাকায় অনেকের ফসল নষ্ট হয়েছে। ঠিক এমন গল্পই শোনালেন আড়িয়াদহের ফুটপাতের এক সব্জি ব্যবসায়ী। তিনি ডায়মন্ড হারবার থেকে আসেন। স্বামী-স্ত্রী দুজনে মিলে রাস্তার ধারে ত্রিপল পেতে তাতে সব্জি বিক্রি করেন। এর পাশাপাশি থাকে হাঁসের ডিম। সবাই তাদের নিজের বাড়ির খামারের। আক্ষেপের সুরে ওই ব্যবসায়ী বলেন, বাজার নেই। করোনা পরিস্থিতিতে এমনিতেই হাতে টাকা নেই। দীর্ঘদিন ট্রেন বন্ধ ছিল। সবে দিন দুয়েক হল এই বাজারে আসছি। তবে ট্রেনের সংখ্যা কম হওয়ায় যাতায়াতের সম্পূর্ণ সুরাহা হয়নি। তাই বাধ্য হয়ে অনেক সময় কম দামে জিনিসপত্র বিক্রি করতে হচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular

আমার স্কুল: পাথরপ্রতিমা আনন্দলাল আদর্শ বিদ্যালয়

ইন্দ্রস্কুল প্রায় সবারই কাছেই প্রিয়। স্কুল এমনই একটি জায়গা যেখানে জীবনের শুরুর দিকে একটা বড় অংশ আমরা কাটাই, অনেক নতুন বন্ধু তৈরি...

ঘোড়ামারা: অভিশাপ না প্রশাসনিক অবহেলা? ক্ষয়িষ্ণু দ্বীপে ভাসমান কিছু প্রশ্ন

বিশেষ প্রতিবেদন লিখেছেন প্রত্যয় চৌধুরীজমি নেই, ঘর নেই, বাড়ি নেই। চারিদিকে শুধু জল আর জল! প্রকৃতি যে এরকম নিষ্ঠুর হতে পারে, তা...

নরহরিপুরে ত্রাণ বিলি

দুই সপ্তাহ হতে চলল, এখনও ইয়াস বিধ্বস্ত সমস্ত এলাকায় ক্ষয়ক্ষতিপূরণ পৌঁছায়নি। দক্ষিণ ২৪ পরগণার বেশ কিছু এলাকার বাসিন্দাদের মধ্যে এখনও বিতরণ করা...

ইয়াস: ক্ষতিগ্রস্ত ঘোড়ামারা, পাথরপ্রতিমা বাজারেও ঢুকেছে জল

আম্ফানের পরেই একটি বিধ্বংসী ঝড়ের সাক্ষী হল সুন্দরবন। গত বছরের আম্ফানের মতো এবারও সাইক্লোন ইয়াসে অনেক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। নদীবাঁধ ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।সুন্দরবনের...

Recent Comments

error: Content is protected !!