শনিবার, অক্টোবর ১৬, ২০২১
Home জনপদ সাইক্লোনের পর ত্রাণের সাথে সুন্দরবনে ঢুকেছে প্রচুর প্লাস্টিক, সঙ্কটে বাস্তুতন্ত্র

সাইক্লোনের পর ত্রাণের সাথে সুন্দরবনে ঢুকেছে প্রচুর প্লাস্টিক, সঙ্কটে বাস্তুতন্ত্র

৩২২ Views

করোনা মহামারি, সাইক্লোনের মতো সমস্যায় এমনিতেই সুন্দরবনের নাজেহাল অবস্থা। তার ওপর সেখানে আবার এক নতুন সমস্যা দেখা দিয়েছে।

সাইক্লোন আছড়ে পড়ার পর বিভিন্ন বেসরকারি সংস্থা, এনজিওর তরফ থেকে সুন্দরবনে ত্রাণ বিলি করা হয়। আর এখান থেকেই তৈরি হয়েছে নতুন সমস্যা- প্লাস্টিকের দূষণ। সুন্দরবনের বিভিন্ন দ্বীপে নদীবাঁধের ধারে জমা হচ্ছে ভেসে আসা প্লাস্টিকের বোতল। বিশেষজ্ঞরা এই ব্যাপারে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। তারা বলেছেন, এই প্লাস্টিক দূষণ সুন্দরবনের বাস্তুতন্ত্রের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর। হিন্দু পত্রিকায় প্রকাশিত একটি রিপোর্টে ইকোলজিস্ট দিয়া ব্যানার্জী এই বিষয়টি ২০২১ সালের মে মাসে সুন্দরবনে সাইক্লোন ইয়াস আছড়ে পড়ার পর বহু এলাকা জলমগ্ন হয়ে যাওয়ার পর থেকে উল্লেখ করছেন। তিনি বলেন, “গোসাবা, মৌসুনী, বালি, পাথরপ্রতিমা এবং কুলতলীর মতো সুন্দরবনের প্রত্যন্ত এলাকাগুলিতে আমরা অনেক প্লাস্টিক দেখতে পাচ্ছি। এই বিশাল প্লাস্টিকের জন্য স্থানীয় বাসিন্দারা দায়ী নন; বহিরাগতদের দৌলতে এলাকায় এই পরিমাণ প্লাস্টিক দেখা যাচ্ছে, যা আগে এখানে ছিল না।” তিনি আরও বলেন যে, সাইক্লোন ইয়াস আছড়ে পড়ার পর একটি এনজিও গোসাবা ব্লকর থেকে প্রায় ৩০০ কেজি প্লাস্টিক বর্জ্য উদ্ধার করেছে।

সুন্দরবনে এই মুহূর্তে ঠিক কত পরিমাণ প্লাস্টিক বর্জ্য রয়েছে, তার হিসাব পাওয়া মুশকিল। তবে হিন্দু পত্রিকায় প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে কলকাতা সোসাইটি অব কালচারাল হেরিটেজের তরফে সৌরভ মুখার্জী বলেছেন, শুধুমাত্র গোসাবা ব্লকে প্রায় ৫৬ টন প্লাস্টিক আবর্জনা আছে। তিনি বলেন, “পরিবারগুলি কত পরিমাণ প্যাকেটজাত ত্রাণ পেয়েছেন, কতবার পেয়েছেন, এসবের ভিত্তিতে আমরা এই পরিমাণটি হিসাব করেছি।”

শুধু পরিবেশবিদরাই নন, পুলিশ কর্তারাও বিষয়টি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। দ্য হিন্দু পত্রিকায় প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন থেকে জানা গিয়েছে, বারুইপুর পুলিশ জেলার এডিএসপি অরিজিৎ বসু সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি পোস্ট করেন। তিনি উল্লেখ করেন, ত্রাণ দেওয়ার সময় যে অসংখ্য প্লাস্টিকের জলের বোতল নিয়ে যাওয়া হয়েছিল, সেগুলি যেখানে সেখানে ফেলে রাখা হয়েছে। তিনি স্থানীয় বাসিন্দা এবং এনজিওদের কাছে সুন্দরবন থেকে এই প্লাস্টিক আবর্জনা সরিয়ে ফেলার অনুরোধ করেন।

হিন্দু পত্রিকায় প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ওশিয়ানোগ্রাফিক স্টাডিজের ডিরেক্টর তুহিন ঘোষ বলেন, সুন্দরবনের বাস্তুন্ত্রে এই প্লাস্টিকের আবর্জনা দীর্ঘমেয়াদী প্রভাব ফেলবে। অধ্যাপক ঘোষের কথায়, “নোনা জলে প্লাস্টিক মিশে আরও বিষাক্ত হয়ে ওঠে। এটি সুন্দরবনের ফুড সিস্টেমকে ধীরে ধীরে ক্ষতি করবে।”

সুন্দরবনের বাসিন্দাদের অন্যতম অর্থনৈতিক উৎস হল মাছ ধরা এবং মাছ চাষ। বাস্তুতন্ত্রে কোনও পরিবর্তন হলে তা এই অর্থনৈতিক উৎসের ক্ষতি করবে। ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ সাইট হিসাবে পরিচিত সুন্দরবনের গর্ব রয়্যাল বেঙ্গল টাইগার, ডলফিন, কুমীর সহ প্রায় ২,৬২৬ রকমের প্রাণীর অস্তিত্বও চ্যালেঞ্জের মুখে পড়বে। এছাড়া সুন্দরবনে ৪২৮টি প্রজাতির পাখি দেখা যায়। প্লাস্টিকের আবর্জনার কারণে তারাও সঙ্কটে পড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। তাই সুন্দরবনে প্লাস্টিকের ব্যবহার নিয়ে ত্রাণ বিতরণকারী থেকে স্থানীয় বাসিন্দা, সবাইকে অত্যন্ত সতর্ক থাকতে হবে। সুন্দরবনে এখন যে প্লাস্টিক রয়েছে, তা রিসাইকল করার ব্যবস্থা করতে হবে।

সাইক্লোনের মতো সমস্যায় এমনিতেই জেরবার সুন্দরবন। তার ওপর প্লাস্টিক দূষণের মতো সমস্যা পরিস্থিতিকে আরও জটিল করে তুলেছে। ২০২০ সালের মে মাসে সুন্দরবনে আছড়ে পড়ে শক্তিশালী সাইক্লোন আম্ফান, যার গতিবেগ ছিল ঘণ্টায় ১০০ থেকে ১৫০ কিলোমিটার। তার আগে ২০১৯ সালের মে মাসে সুন্দরবনে আঘাত হেনেছিল সাইক্লোন ফণী এবং ২০১৯ সালের নভেম্বর মাসে বুলবুল।

প্রত্যেকবার সাইক্লোনের পর সুন্দরবনে যেভাবে অনিয়ন্ত্রিতভাবে বিভিন্ন সংগঠনের তরফে ত্রাণ দেওয়ার প্রচেষ্টা দেখা যায়, তা নিয়েও প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। বাস্তবে দেখা গিয়েছে, সুন্দরবনের কিছু এলাকা অনেক বেশি ত্রাণ পায়, আর কিছু এলাকা ত্রাণ পায় না। যাতে সুন্দরবনের সমস্ত এলাকা সমানভাবে ত্রাণ পায়, সে বিষয়ে সংশ্লিষ্ট সকলের নজর দেওয়া উচিত।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular

আবহাওয়ার পূর্বাভাস: আজ বৃষ্টি হতে পারে

কলকাতা ও তার আশেপাশে আজ, ৩ সেপ্টেম্বর, ২০২১-এর আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, আকাশ মূলত মেঘলা থাকবে। বৃষ্টির সম্ভাবনা আছে। অ্যাকুওয়েদার ডট কম...

সাইক্লোনের পর ত্রাণের সাথে সুন্দরবনে ঢুকেছে প্রচুর প্লাস্টিক, সঙ্কটে বাস্তুতন্ত্র

করোনা মহামারি, সাইক্লোনের মতো সমস্যায় এমনিতেই সুন্দরবনের নাজেহাল অবস্থা। তার ওপর সেখানে আবার এক নতুন সমস্যা দেখা দিয়েছে। সাইক্লোন...

১ সেপ্টেম্বর থেকে পর্যটকদের জন্য খুলে যাচ্ছে সুন্দরবন

সুন্দরবনের অর্থনীতির অন্যতম স্তম্ভ হল পর্যটন। তবে বিগত দু বছরে করোনার জেরে বাংলাদেশের সুন্দরবন অঞ্চলে পর্যটন ধাক্কা খেয়েছে। মাঝে খোলা হলেও, করোনার...

সুন্দরবনের অন্যতম স্কুল: বরদাপুর আদর্শ মিলন বিদ্যাপীঠ

ইন্দ্রবরদাপুর আদর্শ মিলন বিদ্যাপীঠের পথ চলা শুরু হয় ১৯৬০ সালের ১৮ ফেব্রুয়ারি। প্রথম দিকে স্কুলটি মাটির দেওয়াল ও টালির চাল দিয়ে তৈরি...

Recent Comments

error: Content is protected !!