রবিবার, সেপ্টেম্বর ২৬, ২০২১
Home Uncategorized নারদা মামলায় গ্রেফতারিতে প্রতিহিংসার গন্ধ পাচ্ছে বিরোধীরা

নারদা মামলায় গ্রেফতারিতে প্রতিহিংসার গন্ধ পাচ্ছে বিরোধীরা

১৫৫ Views

প্রত্যয় চৌধুরী

নারদা মামলায় গ্রেফতার করা ২ তৃণমূল মন্ত্রী ও ১ বিধায়কের ঘটনাকে বিরোধী দলগুলি মোটেই ভাল চোখে দেখছে না। তারা সিবিআই-এর এই অকস্মাৎ আবির্ভাবকে যুক্তিযুক্ত বলে মনে করতে পারছেন না। এর প্রাসঙ্গিকতা ও পদ্ধতিতে সায় দিতে নারাজ তারা। তাদের মতে ২০২১ এ বাংলার নির্বাচনে আশানুরূপ ফল করতে না পারায় হাত ধুয়ে তৃণমূল কংগ্রেস এবং বাংলার পিছনে পড়ে রয়েছে বিজেপি। পাশাপাশি রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়ের একজন রাজ্যপালের থেকেও বিজেপি নেতা হিসাবে নিজেকে পেশ করছেন বলে বিরোধীরা অভিযোগ তুলেছে। গতকাল প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরী জানিয়েছেন, করোনাকালীন এই পরিস্থিতিতে সিবিআই-এর বাংলায় আসাকে কার্যত অপ্রাসঙ্গিক এবং এতে বিজেপির প্রতিহিংসার রাজনীতি প্রকাশ পেয়েছে বলেই তিনি মনে করেছেন।

কংগ্রেস থেকে সিপিআই সব বিরোধী দলগুলিই সিবিআই-এর এই পদক্ষেপকে সাহসী প্রচেষ্টার সম্মান দিচ্ছেন কিন্তু তারা পাশাপাশি এটাও বলছেন বাংলায় নির্বাচনে হেরে যাওয়াকে এবার বিজেপির মেনে নেওয়া উচিত। কোনও সন্দেহ নেই সাম্প্রতিক ঘটনাগুলি সেই হারের প্রতিফলন রূপেই সবার সামনে ফুটে উঠছে। ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের একটি প্রতিবেদন থেকে জানা গিয়েছে, রাষ্ট্রীয় জনতা দলের সিনিয়র নেতা মনোজ কুমার ঝা জানাচ্ছেন, রাজ্যপালের উচিত একজন বিজেপি নেতা হিসাবে নিজেকে না পেশ করা। তিনিই আসল বিরোধী দল নেতার আচরণ করছেন।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে দেওয়া একটি সাক্ষাতকারে ঝা আরও জানান, আমি একদমই আশ্চর্য নই বিজেপির এরকম আচরণে। কারণ লাগাতার এত বড় ক্যাম্পেন করার পরেও বাংলায় বিজেপি আসন পাবে না, এটা তারা ভাবতে পারেনি। দিল্লির সুলতান নিজের হার মেনে নিতে পারেননি। আমি গত কয়েক বছর ধরেই এই দলটির এরকম আচরণ দেখেছি, তাই আমার কাছে নতুন কিছুই মনে হচ্ছে না।

শেষে মনোজ বাবু বলেন, তবে মনে রাখা উচিত প্রত্যেক স্বৈরাচারী শাসনেরই দিন ফুরিয়ে আসে, এক্ষেত্রেও এই শাসনব্যবস্থা তলানিতে ঠেকতে আর বেশিদিন নেই।

এদিকে প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ও কংগ্রেস নেতা অশ্বিনী কুমার জানিয়েছেন, এই ঘটনা সম্পূর্ণ ভাবে পক্ষপাতমূলক রাজনীতি নিদর্শন। বিজেপি সিবিআইয়ের নৈতিকতা এবং সিদ্ধান্তকে ভীষণ ভাবে প্রভাবিত ও নিয়ন্ত্রিত করছে বলে তিনি জানান। তিনি আরও জানান, নারদার মতো দূর্নীতিমূলক কাণ্ডের বিরুদ্ধে সিবিআইয়ের হানা একটি সাহসী প্রচেষ্টা কিন্তু তা যেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়কে শাসানোর উদ্দেশ্যেই করা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, নাগরিকদের মৌলিক অধিকার কেড়ে নিয়ে নির্বিচারে বলপূর্বক ফৌজদারি মামলা জারি করা অসাংবিধানিক। পাশাপাশি সুপ্রিম কোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে অভিযুক্ত রাজনৈতিক নেতাদের সামরিক বাহিনীকে কারাবাসে আটক করে উপহাস করা নিন্দনীয়।

শিবসেনার সঞ্জয় রাউত জানান, এই সমস্ত ঘটনায় প্রধানমন্ত্রীর ভাবমূর্তি বিনষ্ট হচ্ছে। বাংলায় নির্বাচনে হেরে যাওয়াটা আগে বিজেপি’র স্বীকার করা উচিত। তিনি এও বলেন যে কেন্দ্র যেভাবে সিবিআইয়ের হাতে ক্ষমতা তুলে দিয়েছে তা এক রাজনৈতিক আন্দোলনের সূচনা করবে এবং রাজ্যপাল এই রাজনৈতিক ক্ষেত্রে নিজেকে ব্যক্তিগত ভাবে জড়াচ্ছেন যা বাংলার মানুষ মেনে নেবে না। পাশাপাশি বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী ও মুকুল রায়ের বিরুদ্ধে কোনও পদক্ষেপ নেওয়া হল না কেন, সেই নিয়েও কেন্দ্রকে কটাক্ষ করেছেন রাউত।

অন্যদিকে সিপিআইয়ের সাধারণ সচিব ডি রাজা বলেছেন যে বাংলায় বিজেপির হেরে যাওয়া তারা মেনে নিতে পারে নি। তাদের সাথে মমতা বন্দোপাধ্যায়ের রাজনৈতিক সম্পর্ক মধুর নাই হতে পারে, কিন্তু এটা কেন্দ্রের সাথে রাজ্যের মৈত্রীর সম্পর্কে আঘাত হেনেছে। বিজেপি সবকিছুকে অবজ্ঞা করছে। তিনি প্রশ্ন ছুঁড়ে এও বলেন, এই সময়ে এই ২ তৃণমূল মন্ত্রী ও বিধায়কের গ্রেফতারের ঘটনা কি ভবিষ্যতের কোনও স্বার্থসিদ্ধির উদ্দেশ্যে?

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular

আবহাওয়ার পূর্বাভাস: আজ বৃষ্টি হতে পারে

কলকাতা ও তার আশেপাশে আজ, ৩ সেপ্টেম্বর, ২০২১-এর আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, আকাশ মূলত মেঘলা থাকবে। বৃষ্টির সম্ভাবনা আছে। অ্যাকুওয়েদার ডট কম...

সাইক্লোনের পর ত্রাণের সাথে সুন্দরবনে ঢুকেছে প্রচুর প্লাস্টিক, সঙ্কটে বাস্তুতন্ত্র

করোনা মহামারি, সাইক্লোনের মতো সমস্যায় এমনিতেই সুন্দরবনের নাজেহাল অবস্থা। তার ওপর সেখানে আবার এক নতুন সমস্যা দেখা দিয়েছে। সাইক্লোন...

১ সেপ্টেম্বর থেকে পর্যটকদের জন্য খুলে যাচ্ছে সুন্দরবন

সুন্দরবনের অর্থনীতির অন্যতম স্তম্ভ হল পর্যটন। তবে বিগত দু বছরে করোনার জেরে বাংলাদেশের সুন্দরবন অঞ্চলে পর্যটন ধাক্কা খেয়েছে। মাঝে খোলা হলেও, করোনার...

সুন্দরবনের অন্যতম স্কুল: বরদাপুর আদর্শ মিলন বিদ্যাপীঠ

ইন্দ্রবরদাপুর আদর্শ মিলন বিদ্যাপীঠের পথ চলা শুরু হয় ১৯৬০ সালের ১৮ ফেব্রুয়ারি। প্রথম দিকে স্কুলটি মাটির দেওয়াল ও টালির চাল দিয়ে তৈরি...

Recent Comments

error: Content is protected !!