রবিবার, এপ্রিল ১৮, ২০২১
Home feature পুরুষদের কান্না দুর্বলতা নয়, বললেন শচীন

পুরুষদের কান্না দুর্বলতা নয়, বললেন শচীন

১৬০ Views

সত্তরের দশকের অ্যাংরি ইয়াং ম্যান অমিতাভ বচ্চনের ব্যারিটোন ভয়েসে সেই বিখ্যাত ডায়ালগটা মনে আছে ? মর্দ কো দর্দ নেহি হোতা! যার একটা মোটামুটি অনুবাদ হতে পারে, পুরুষ মানেই শক্তিশালী। সে দুর্বল নয়।

বিগ বির এই ডায়ালগ অনেকটা যেন এই পুরুষশাসিত সমাজের কাছে প্রতীকি হয়ে উঠেছে। পুরুষ মানে সে মেজাজী, পুরুষ মানে রাগী, পুরুষ মানে পুরুষালী, পুরুষ মানে মেয়েলি নয়, মেয়েলি পুরুষ মানে পুরুষ নয় – ইত্যাদি ধ্যানধারণা এই সমাজের মজ্জাগত। আর সে কারণেই বোধহয় অনেকেই এটা ভাবেন, পুরুষ আবার কাঁদবে কেন! পুরুষের কান্না শোভা পায় না! পুরুষ আবার সবার সামনে কাঁদবে!

তিনিও আগে এই ধারণায় বিশ্বাস করতেন। তবে এখন তার ভাবনা বদলে গিয়েছে। তিনি ভারতের ক্রিকেট ভগবান শচীন তেন্ডুলকর। ইন্টারন্যাশনাল মেনস উইক উপলক্ষে সোশ্যাল মিডিয়াতে পুরুষদের উদ্দেশে লেখা একটি খোলা চিঠিতে মাস্টার ব্লাস্টার বলেন, কান্নার মধ্যে কোনো লজ্জা নেই।

শচীন বলেন, ভেতরটা জলে-পুড়ে খাক হয়ে গেলে বাইরে পুরুষত্ব দেখিয়ে কোনো লাভ নেই। সবার সামনে নিজের অশ্রু বিসর্জন করার মধ্যে লজ্জার কিছু নেই। নিজের ব্যক্তিত্বের এই অংশটিকে লুকিয়ে রেখে কি লাভ যেটি আপনাকে শক্তিশালী করে। চোখের জল লুকিয়ে রাখবেন কেন ?

শচীন বলেন, আমাদের সমাজ আমাদের বুঝিয়েছে যে পুরুষদের কাঁদতে নেই। কাঁদলে নাকি পুরুষ দুর্বল হয়ে পড়ে। আমিও বড় হয়ে ওঠার সময় এই ধারণায় বিশ্বাস করতাম। তবে আজ আমি এই চিঠি লিখছি এটা বলার জন্য যে আমার ধারণা ভুল ছিল। আমার ব্যথা, আমার লড়াই আজ আমাকে একজন উপযুক্ত পুরুষ করে তুলেছে।

৪৬ বছর বয়সী শচীন স্পষ্টভাবে বলেন, কান্না দুর্বলতার প্রতীক নয়। শচীন বলেন, অনেক সাহস থাকলে তবেই নিজের দুর্বলতার কথা সবার সামনে বলা যায়। তবে এটা করতে পারলে আপনি মানুষ হিসেবে আরও পরিণত হবেন। সুতরাং পুরুষ কি করতে পারে আর কি করতে পারে না – এই সম্পর্কে বস্তাপচা ধ্যানধারণা ছুঁড়ে ফেলতে আমি আপনাদের উৎসাহ দিচ্ছি।

পুরুষদের কান্না প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে শচীন নিজের অভিজ্ঞতার কথা তুলে ধরেন। নিজের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের শেষ দিনে বিদায়ী বক্তৃতা দিতে গিয়ে তার গলা ধরে আসে। কান্নায় ভেঙে পড়েন শচীন। সেই প্রসঙ্গে তিনি বলেন, এই সম্পর্কে আমি অনেক ভেবেছি। কিন্তু প্যাভিলিয়নে শেষবার হেঁটে যাওয়ার সময় কিভাবে নিজেকে সামলাবো তার উপার বের করতে পারিনি। যত আমি এগোচ্ছিলাম, প্রতিটি পদক্ষেপের সঙ্গে আরও ভেঙে পড়ছিলাম। আমার গলা বুজে আসছিল।

শচীন জানান, সেদিন সবার সামনে কাঁদতে পেরেছিলেন বলেই বরং পুরুষ হিসেবে তিনি আজ নিজেকে অনেক বেশি পরিণত মনে করেন।  

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular

স্যামসনের অবিশ্বাস্য ব্যাটিং, তবুও শেষ হাসি হাসল পাঞ্জাব

স্কোরবোর্ড বলছে, আইপিএল ২০২১-এর চতুর্থ ম্যাচে রাজস্থান রয়্যালসকে ৪ রানে হারিয়ে দিয়েছে পাঞ্জাব কিংস। তবে সেটা দেখে ম্যাচের আসল ছবি বোঝা যাবে...

ধর্নায় বসবেন মমতা

বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের রাজনৈতিক প্রচারের উপর 24 ঘন্টার নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে নির্বাচন কমিশন। এই নিয়ে তৃণমূল কংগ্রেস ক্ষোভ প্রকাশ করেছে। সেই...

মানুষ মরে এভাবেই, কেউ খোঁজ রাখে না

বিশ্বজিৎ মান্না ধরুন আপনি সকালে ঘুম থেকে উঠে, বাজারের থলে হাতে নিয়ে বেরোলেন। আপনার বাড়ির লোক বা আপনি কী...

ফের ক্ষমতায় দিদি, তবে বিজেপির আসন বাড়বে: বলছে সমীক্ষা

বিগত কয়েক বছরে পশ্চিমবঙ্গে অন্যতম বিরোধী দল হিসাবে বিজেপি নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছে। কেন্দ্রের শাসক দলের দাবি, রাজ্যে এবার তারাই ক্ষমতায় আসতে চলেছে।...

Recent Comments

error: Content is protected !!