বৃহস্পতিবার, জুন ১৭, ২০২১
Home village কোভিড, জলবায়ুর পরিবর্তন হাসি কেড়েছে সুন্দরবনের 'রানি'দের

কোভিড, জলবায়ুর পরিবর্তন হাসি কেড়েছে সুন্দরবনের ‘রানি’দের

১৭৩ Views

অঙ্কিতা পাল

ভারতে বেলাগাম করোনা পরিস্থিতি। করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে কাবু গোটা দেশ। করোনার জেরে বেড়েছে সাংসারিক অশান্তি। মহিলাদের নিরপত্তা গ্রাস করেছে করোনা ভাইরাস। করোনার কালো ছায়া তখনও পশ্চিমবঙ্গের উপর জাঁকিয়ে বসেনি। গত বছরের এপ্রিল মাস পর্যন্ত  সুন্দরবনের সাগরদ্বীপের ১৭ বছর বয়সী রানি খাতুন দিনের বেশিরভাগ সময়ই স্কুলে কাটাতে পারত। আসন্ন বোর্ডের পরীক্ষার প্রস্তুতি নিচ্ছিল সে। শিক্ষিকা হতে চেয়েছিল সে। কিন্তু বছর ঘুরতে না ঘুরতেই খাতুন স্কুল ছেড়ে দিতে বাধ্য হয় এবং জোর করে তাকে বিয়ে দিয়ে দেওয়া হয়। এরপর থেকেই সে গার্হস্থ্য হিংসার শিকার হয়েছে।

বিশ্বের সর্ববৃহৎ ব-দ্বীপ এই সুন্দরবন। ৬,২১৩ বর্গ কিলোমিটার জুড়ে গভীর জঙ্গলে ঢাকা এই বিস্তীর্ণ ব-দ্বীপ অঞ্চল। কাটাকুটি খেলতে খেলতে বয়ে চলা একাধিক নদীর মাঝেই বসবাস প্রায় ৪৫ লক্ষ মানুষের। ভারত-বাংলাদেশ মিলিয়ে এই বিস্তীর্ণ এলাকার বাসিন্দারা জীবিকা হিসেবে বেছে নিয়েছে চাষবাস, মাছ ধরা, পান চাষ, মধু সংগ্রহ। এই সুন্দরবনেই অবস্থিত সাগরদ্বীপ। এই ২৮২ বর্গকিলোমিটার এলাকায় বাস ২ লক্ষ মানুষের।

২০০৯ সালে ঘূর্ণিঝড় আয়লার পরে সুন্দরবন ছেড়ে বহু মানুষ বাঁচার তাগিদেই পাড়ি দিয়েছিলেন শহরের দিকে। তবে করোনা লকডাউনের জেরে এরা শহরে কাজ হারায়। বাধ্য হয়ে ফের তাদেরকে ফিরতে হয় সুন্দরবনেই। তবে ফিরে এসেই তারা আবার সম্মুখীন হন আরও একটি ঘূর্ণিঝড়ের। আমফান।

এই পরিস্থিতিতে রানির বাবা শেখ মুস্তাফার আয় প্রায় শূন্য হয়ে যায়। তিনি একটি দর্জির দোকান চালাতেন। গত বছর জুন মাসে লকডাউনের কড়াকড়ি শিথিল করা হলেও ব্যবসা পুরোনো চেহারায় ফেরাতে পারেননি ৪৬ বছর বয়সী শেখ মুস্তাফা। এই আবহে পরিবারের ভাতের জোগান করতে কাল-ঘাম ছুটছে তাঁর। এরপরই রানির বিয়ের প্রস্তাব আসে। এই বিয়ের জন্য বরপক্ষ ৮০ হাজার টাকা যৌতুকও চায়। যদিও বেআইনি, ভারতের বিভিন্ন প্রান্তে এখনও এই যৌতুক প্রথার প্রচলন আছে। এদিকে এই বিয়ে এমনিতেও বেআইনি ছিল, কারণ রানি তখনও প্রাপ্তবয়স্ক হয়নি।

এই বিয়ের বিষয়ে রানির মা নজুলা বিবি বলেন, ‘আমরা ভেবেছিলাম যে মেয়েকে বিয়ে দিলে পরিবারের একজন সদস্য কমে যাবে, একজনকে কম খাওয়াতে হবে।’ তবে এই বিয়ে রানির জন্য মঙ্গলময় হয়নি। অভিযোগ, রানির উপর তার স্বামী এবং শ্বশুরবাড়ির পরিবার অত্যাচার চালাত। এই অত্যাচার সহ্য করতে না পেরে রানি নিজের বাড়িতে ফিরে আসতে বাধ্য হয়।

অভাব ও পেটের দায়ে সুন্দরবনের আনাচে কানাচে রানির মতো আরও অনেক মেয়ের কান্না ভেসে আসে। সুন্দরবনের আরও অনেক অপ্রাপ্তবয়স্ক মেয়েকেও বসতে হয় বিয়ের পিঁড়িতে। অশিক্ষা, অভাব এর মূল কারণ। পাশাপাশি জলবায়ু পরিবর্তনের জেরে সুন্দরবনের বিস্তীর্ণ এলাকা ধীরে ধীরে জলের তলায় চলে যাচ্ছে। কৃষকদের চাষ জমিতে নোনাজল ঢুকে কৃষিকাজ ব্যাহত হচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে তাঁদের কাছে করোনা হল গোঁদের ওপর বিষ ফোঁড়া। মানুষ চাকরি হারিয়ে শহর থেকে সুন্দরবনে ফিরে আসতে বাধ্য হচ্ছেন।

ইউনিসেফ-এর অনুমান, ভারতে প্রতি বছর প্রায় ১৫ লক্ষ অপ্রাপ্তবয়স্ক মেয়েকে বিয়ে দেওয়া হয়। তবে কোভিড ও আমফানের পর সংখ্যাটা এক লাফে অনেকটাই বেড়ে গেছে, তার ইঙ্গিত পাওয়া গেছে। সরকার নিযুক্ত সমন্বয়কারী সংস্থার প্রিতিনিধি লাবণী দাস এই বিষয়ে জানান, গত একবছরে শুধুমাত্র সাগরদ্বীপেই এই ধরনের ঘটনা অনেক বেড়েছে। বিভিন্ন সূত্রের খবর পেয়ে এই এক বছরে লাবণীরা ৫০টি বাল্যবিবাহ রুখে দিয়েছে।

এই আবহে সুন্দরবন এলাকাতে বাল্যবিবাহ ঠেকাতে পশ্চিমবঙ্গ শিশু অধিকার সুরক্ষা কমিশন একটি বিশেষ দল গঠন করেছে। এদিকে বাল্যবিবাহের বিভীষিকার মধ্য দিয়ে যাওয়া মেয়েদের পুনর্বাসন কেন্দ্রে পাঠানো হবে। সেখানে তাদের মানসিক কাউন্সেলিং করা হবে। তাছাড়া তাদের কারিগরী শিক্ষাও দেওয়া হচ্ছে। বাল্যবিবাহের সঙ্গে যুক্তদের ১ লক্ষ টাকা জরিমানা সহ দুই বছরের কারাবাসের সংস্থানও আনা হয়েছে সরকারের তরফে। তবে এই পুরো পরিস্থিতিটা একটি চক্রব্যূহের মতো। জলবায়ুর পরিবর্তনের জেরে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন মহিলারা। ২০১২ সালের একটি সমীক্ষা অনুযায়ী, জলবায়ুর পরিবর্তনের জেরে সুন্দরবনের ৬৪ শতাংশ মানুষকে নিজেদের জীবিকা বদলাতে হয়েছে। আর এর পরোক্ষ প্রভাব পড়ছে মহিলাদের উপর।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular

আমার স্কুল: পাথরপ্রতিমা আনন্দলাল আদর্শ বিদ্যালয়

ইন্দ্রস্কুল প্রায় সবারই কাছেই প্রিয়। স্কুল এমনই একটি জায়গা যেখানে জীবনের শুরুর দিকে একটা বড় অংশ আমরা কাটাই, অনেক নতুন বন্ধু তৈরি...

ঘোড়ামারা: অভিশাপ না প্রশাসনিক অবহেলা? ক্ষয়িষ্ণু দ্বীপে ভাসমান কিছু প্রশ্ন

বিশেষ প্রতিবেদন লিখেছেন প্রত্যয় চৌধুরীজমি নেই, ঘর নেই, বাড়ি নেই। চারিদিকে শুধু জল আর জল! প্রকৃতি যে এরকম নিষ্ঠুর হতে পারে, তা...

নরহরিপুরে ত্রাণ বিলি

দুই সপ্তাহ হতে চলল, এখনও ইয়াস বিধ্বস্ত সমস্ত এলাকায় ক্ষয়ক্ষতিপূরণ পৌঁছায়নি। দক্ষিণ ২৪ পরগণার বেশ কিছু এলাকার বাসিন্দাদের মধ্যে এখনও বিতরণ করা...

ইয়াস: ক্ষতিগ্রস্ত ঘোড়ামারা, পাথরপ্রতিমা বাজারেও ঢুকেছে জল

আম্ফানের পরেই একটি বিধ্বংসী ঝড়ের সাক্ষী হল সুন্দরবন। গত বছরের আম্ফানের মতো এবারও সাইক্লোন ইয়াসে অনেক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। নদীবাঁধ ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।সুন্দরবনের...

Recent Comments

error: Content is protected !!