বৃহস্পতিবার, জুন ১৭, ২০২১
Home sports ২০২১ আইপিএলের নিলামে যে তিনটি দল ধোনিকে ক্রয়ের জন্য ঝাঁপাতে পারে

২০২১ আইপিএলের নিলামে যে তিনটি দল ধোনিকে ক্রয়ের জন্য ঝাঁপাতে পারে

২৭৯ Views

বয়স যতই হোক, তিনি এমএস ধোনি। যেকোনো দল তাকে পেতে যে আগ্রহী হবে, তাতে কোনো সন্দেহ নেই। ২০২১ সালে অনুষ্ঠিত হবে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) মেগা অকশন। আর তাতে অন্যতম আকর্ষণ হতে চলেছেন মাহি। আইপিএলের প্রথম মরসুমে তাকে ক্রয় করেছিল চেন্নাই সুপার কিংস। তারপর থেকেই তিনি এই ফ্র্যাঞ্চাইজির সাথে রয়েছেন। তার হাত ধরেই আইপিএলে তিনবার চ্যাম্পিয়ন হয়েছে সিএসকে। এছাড়া চ্যাম্পিয়ন্স লিগ টি-২০ তে দুবার দলকে চ্যাম্পিয়ন করিয়েছেন মাহি। শুধু ব্যাটিং বা উইকেট কিপিং নয়, তার ক্রিকেটীয় বুদ্ধিও অতুলনীয়। তাই সমস্ত দল যে মাহিকে পেতে আগ্রহী, এতে অবাক হওয়ার কিছু নেই। এর জন্য দলগুলি যত টাকা খরচ করা যায়, তা করতে রাজি আছে।

২০২১ সালের মেগা অকশনের নিয়ম হল, আইপিএলের সমস্ত ফ্র্যাঞ্চাইজিকে সমস্ত খেলোয়াড় ছেড়ে দিতে হবে। কোনো খেলোয়াড়কেই রিটেন করা যাবে না। এই পরিস্থিতিতে ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরা অনুমান করছেন যে, ২০২১ সালের আইপিএলের আগে মেগা অকশনে এমএস ধোনিকে দলে পেতে ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলির মধ্যে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হবে।

কোন দল ধোনিকে নেওয়ার জন্য ঝাঁপিয়ে পড়তে পারে তা নিয়ে এর মধ্যেই ক্রিকেট মহলে জোরদার চর্চা শুরু হয়েছে। এরকমই তিনটি দলের কথা নিচে তুলে ধরা হল, যারা আইপিএল ২০২১ এর নিলামে ধোনিকে তাদের দলে শামিল করতে মরিয়া হয়ে উঠতে পারে।

. রাজস্থান রয়্যালস

প্রথমবারের, অর্থাৎ ২০০৮ সালের আইপিএল চ্যাম্পিয়ন রাজস্থান রয়্যালস। তবে ওই টুকুই। প্রথম বছর বাদ দিলে বাকি বছরগুলিতে উল্লেখযোগ্যভাবে ভালো খেলতে পারেনি রাজস্থান রয়্যালস। তাদের অন্যতম ভরসাযোগ্য খেলোয়াড় শেন ওয়ার্ন ২০১১ সালে তাদের ছেড়ে চলে যান। উদ্বোধনী বছর বাদ দিলে আইপিএলে সেভাবে দাগ কাটতে পারেনি রাজস্থান রয়্যালস। তার উপর ম্যাচ ফিক্সিংয়ের অভিযোগে দু বছরের জন্য আইপিএল থেকে তাদের নির্বাসনে পাঠানো হয়। নির্বাসন থেকে ফিরে আসার পর রাজস্থান রয়্যালসকে বেশ অগোছালো মনে হয়েছে। পুরোনো দিনের গৌরব ফিরিয়ে আনতে ম্যানেজমেন্টের তরফে তাই এমএস ধোনিকে শামিল করার চেষ্টা চালানো হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

তাদের ব্যাটিংয়ের অন্যতম স্তম্ভ ছিলেন অজিঙ্কে রাহানে। আরআর দলের এই তারকাকে দলের অধিনায়কত্বের দায়িত্বও দেওয়া হয়। কিন্তু তাতে কোনো সুফল পাওয়া যায়নি। দেখে স্পষ্ট বোঝা যাচ্ছিল যে অধিনায়কত্বের ভারে রাহানের ব্যাটিং ব্যাহত হচ্ছিল। এর পর স্টিভ স্মিথকে অধিনায়কত্বের দায়িত্ব দেওয়া হয়। তিনিও প্রত্যাশা পূরণ করতে পারেননি। ঠিক এই জায়গাতেই তাদের ধোনিকে প্রয়োজন হতে পারে। ধোনিকে নিলামে নিতে পারলে সেক্ষেত্রে রাজস্থানের অধিনায়ক হবেন ধোনি। অন্যদিকে স্মিথ তার ব্যাটিংয়ে আরও মন দিতে পারবেন।

. কিংস ইলেভন পাঞ্জাব

টুর্নামেন্টের শুরু থেকেই অর্থাৎ গত ১৩টি মরসুমে সবচেয়ে অগোছালো দল মনে হয়েছে কিংস ইলেভন পাঞ্জাবকে। বিগত ১৩টি মরসুমে তারা ১২ জন অধিনায়ক নিয়োগ করেছে। কিন্তু কেউই সাফল্যের স্বাদ অনুভব করতে পারেননি। খুব স্বাভাবিকভাবেই বোঝা যাচ্ছে যে তাদের মধ্যে নেতৃত্বের একটা অভাব রয়েছে। এমএস ধোনি সেই খামতি পূরণ করতে পারেন। এছাড়া দলকে তিনি আরও সংগঠিত করতে পারবেন। ধোনি তার বিশাল অভিজ্ঞতার জেরে বুঝতে পারবেন কোন ক্ষেত্রে কিংস ইলেভন পাঞ্জাবের উন্নতি করা প্রয়োজন।

তাদের বর্তমান স্কোয়াডে একমাত্র ক্রিস গেইল ছাড়া এমন কোনো খেলোয়াড় নেই যার অভিজ্ঞতা ধোনির সাথে তুলনীয় হতে পারে। এমনকি আইপিএল ২০২০-তে তাদের অধিনায়ক কেএল রাহুলের অধিনায়কত্বের কোনো পূর্ব অভিজ্ঞতা নেই।

আরও একটি কারণে মনে করা হচ্ছে ধোনিকে পাওয়ার জন্য মরিয়া হয়ে উঠবে পাঞ্জাব। তারা সাধারণ একটু বয়স্ক খেলোয়াড়দের দলে শামিল করতে পছন্দ করে। ২০১৮ সালের নিলামে ক্রিস গেইলের জন্য কোনো ফ্র্যাঞ্চাইজি যখন নিলাম করেনি, তখন তাকে দলে শামিল করেছিল পাঞ্জাব। নিলামের শেষ দিনে ৪০ বছর বয়সী গেইলের নাম পেশ করা হয়। বেস প্রাইসে তাকে ক্রয় করেছিল পাঞ্জাব। চল্লিশের কোঠায় পা দেওয়া এমএস ধোনির ক্ষেত্রেও একই জিনিস ঘটতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

. দিল্লি ক্যাপিটালস

প্রথমে নাম ছিল দিল্লি ডেয়ারডেভিলস। মালিকানা বদল হওয়ার পর নাম হল দিল্লি ক্যাপিটালস। চলতি মরসুমের প্লে অফে উঠলেও বিগত মরসুমগুলিতে রাজধানীর এই দল বিশেষ সুবিধা করতে পারেনি। এই দলও আগামী বছরের নিলামে ধোনিকে ক্রয় করার জন্য এগিয়ে রয়েছে বলে অনুমান করা হচ্ছে। পাঞ্জাবের মতো দিল্লি দলেও একজন দক্ষ অধিনায়কের অভাব রয়েছে। তাদের দলে অজিঙ্কে রাহানে, রবিচন্দ্রন অশ্বিনের মতো অভিজ্ঞ খেলোয়াড় রয়েছেন। ধোনিকে দলে শামিল করতে পারলে, দিল্লির ভারসাম্য আরও ভালো হবে বলে মনে করছেন ক্রিকেট পণ্ডিতরা।

আপাতত ২০২১ সালের নিলামের জন্য আমাদের অপেক্ষা করতে হবে। তখনই বোঝা যাবে কোন দলে শেষ পর্যন্ত যোগ দেবেন এমএস ধোনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular

আমার স্কুল: পাথরপ্রতিমা আনন্দলাল আদর্শ বিদ্যালয়

ইন্দ্রস্কুল প্রায় সবারই কাছেই প্রিয়। স্কুল এমনই একটি জায়গা যেখানে জীবনের শুরুর দিকে একটা বড় অংশ আমরা কাটাই, অনেক নতুন বন্ধু তৈরি...

ঘোড়ামারা: অভিশাপ না প্রশাসনিক অবহেলা? ক্ষয়িষ্ণু দ্বীপে ভাসমান কিছু প্রশ্ন

বিশেষ প্রতিবেদন লিখেছেন প্রত্যয় চৌধুরীজমি নেই, ঘর নেই, বাড়ি নেই। চারিদিকে শুধু জল আর জল! প্রকৃতি যে এরকম নিষ্ঠুর হতে পারে, তা...

নরহরিপুরে ত্রাণ বিলি

দুই সপ্তাহ হতে চলল, এখনও ইয়াস বিধ্বস্ত সমস্ত এলাকায় ক্ষয়ক্ষতিপূরণ পৌঁছায়নি। দক্ষিণ ২৪ পরগণার বেশ কিছু এলাকার বাসিন্দাদের মধ্যে এখনও বিতরণ করা...

ইয়াস: ক্ষতিগ্রস্ত ঘোড়ামারা, পাথরপ্রতিমা বাজারেও ঢুকেছে জল

আম্ফানের পরেই একটি বিধ্বংসী ঝড়ের সাক্ষী হল সুন্দরবন। গত বছরের আম্ফানের মতো এবারও সাইক্লোন ইয়াসে অনেক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। নদীবাঁধ ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।সুন্দরবনের...

Recent Comments

error: Content is protected !!